কৃষির এই স্বর্ণযুগের সৌভাগ্য

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল), এগ্রিকেয়ার২৪.কম: কৃষির এই স্বর্ণযুগের সৌভাগ্য সময়ে সবার অংশগ্রহণ প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত (ডিএই)অতিরিক্ত পরিচালক মো. আফতাব উদ্দিন।

আজ শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০) আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষক পর্যায়ে উন্নতমানের ধান, গম ও পাটবীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্পের আঞ্চলিক কর্মশালায় ডিএইর অতিরিক্ত পরিচালক মো. আফতাব উদ্দিন এ মন্তব্য করেন।

নগরীর (বরিশাল) বাংলাদেশ ধান গবেষণা (ব্রি) এর সম্মেলকক্ষে কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত (ডিএই) এ কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের (এটিআই) অধ্যক্ষ গোলাম মো. ইদ্রিস।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. আফতাব উদ্দিন বলেন, এই অংশগ্রহণ কাজের মাধ্যমেই প্রমাণ করতে হবে। তাহলেই আমাদের এসডিজি (টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা) অর্জন হবে। ২০৪০ সালে দেশ হবে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ সামসুল আলম এবং  বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আলমগীর হোসেন।

বানারিপাড়ার উপজেলা কৃষি অফিসার মো. অলিউল আলমের সঞ্চালনায় অনু্ষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপ প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, ডিএই পটুয়াখালীর জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, বাবুগঞ্জের উপজেলা কৃষি অফিসার মোসাম্মৎ মরিয়ম, মুলাদির উপজেলা কৃষি অফিসার মো. রেজাউল হাসান, নলছিটির উপজেলা কৃষি অফিসার ইসরাত জাহান মিলি, ভোলা সদরের উপজেলা কৃষি অফিসার মুহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন প্রমুখ।

কর্মশালায় প্রকল্পের চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের কর্মপরিল্পনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়। অনুষ্ঠানে ডিএই, ব্রি, বারি, বিএডিসি, এটিআই, কৃষি তথ্য সার্ভিস, এসসিএ, এসআরডিআই এবং বিনার শতাধিক কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।

কৃষির এই স্বর্ণযুগের সৌভাগ্য সময়ে সবার অংশগ্রহণ প্রয়োজন শিরোনামের সংবাদটির তথ্য নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল) এগ্রিকেয়ার২৪.কম কে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন: জৈব প্রযুক্তি উন্নয়নে জীব বিজ্ঞানীদেরই অগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে; কৃষিমন্ত্রী