বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ৯:৪৫
দক্ষ, সৎ সিনিয়র কর্মকর্তাদের প্রধানকার্যালয়সহ বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানগুলোতে পোস্টিংয়ের নির্দেশ

দক্ষ, সৎ সিনিয়র কর্মকর্তাদের প্রধানকার্যালয়সহ বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানগুলোতে পোস্টিংয়ের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: দক্ষ, সৎ সিনিয়র কর্মকর্তাদের প্রধানকার্যালয়সহ বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানগুলোতে পোস্টিংয়ের নির্দেশ দিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু।

তিনি শুধুমাত্র দক্ষ ও সৎ সিনিয়র কর্মকর্তাদের প্রধান কার্যালয়সহ বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানগুলোতে পোস্টিংয়ের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেয়ার প্রয়োজনের ওপর জোর দেন। এক্ষেত্রে কোনো প্রকার তদবিরকে প্রশ্রয় না দেয়ার জন্যও তিনি সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

প্রতিমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অধিদফতর ও সংস্থায় নবনিয়োগকৃত বিসিএস ক্যাডারের কর্মকর্তাদের ঢাকা এবং নিজ জেলা-উপজেলা সদরের বাইরে পোস্টিং দেয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন।

সম্প্রতি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত প্রাণিসম্পদ উপখাতের উপখাতের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (ADP) এর মূল্যায়নসভায় সভাপতিত্বকালে এ নির্দেশ দেন।

মৎস্য প্রতিমন্ত্রী প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের ধীরগতিসহ অনিয়মের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, যেখানে অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পবাস্তবায়নের হার ও গতি অনেকবেশি এবং তারা একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আরো বরাদ্দের জন্য চাপ দেন, সেক্ষেত্রে এ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ ফেরত দেয়াটা সমর্থনযোগ্য নয়।

প্রতিমন্ত্রী মাঠপর্যায়ের অফিসারদের অফিসে নিয়মিত উপস্থিতিসহ গাফলতিরোধে তাদের খোঁজখবর নিতে মোবাইলের বদলে ল্যান্ডফোনে যোগাযোগের জন্য মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দেন। মন্ত্রণালয় থেকে ৪ মাস পূর্বে প্রাণিসম্পদ অধিদফতরসহ অন্যান্য দফতরকে ২য়, ৩য় ও চতুর্থশ্রেণির শূন্যপদপূরণের নির্দেশ দেয়ার পরও নিয়োগপ্রক্রিয়া শুরু না করায় সভায় ক্ষোভপ্রকাশ করা হয়।

সভায় প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের প্রায় ৩৪১ কোটি টাকার ১৬টি , বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রায় ৩১ কোটি টাকার ৬টি এবং বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিলের প্রায় সাড়ে ৭কোটি টাকার ১টিসহ মোট ২৩ প্রকল্পের কাজের অগ্রগতির মূল্যায়ন করা হয়।

মৎস্য ও প্রানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৩টি অধিদফতর ও সংস্থার জন্য ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৪৪টি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে, যার জন্য বরাদ্দ আছে প্রায় ৮১৯ কোটি টাকা। এরমধ্যে চলতি ফেব্রুয়ারি-১৯ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে মোট প্রায় ৩৪৮ কোটি টাকা।

বিগত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৪৭টি প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ ছিল ৯৮৯ কোটি টাকা এবং একই সময়ে ব্যয় হয়েছিল সমপরিমান অর্থাৎ ৩৪৮ কোটি টাকা।

আরও পড়ুন: ১২৫ উপজেলার নদীতে ইলিশ মিলছে, ১০ বছরে উৎপাদন বৃদ্ধি ৭৮%

তবে চলতি অর্থবছরে প্রাণি উপখাতের ২৩টি প্রকলের জন্য মোট বরাদ্দ প্রায় ৩৭৯ কোটি টাকা এবং এখাতে এ পর্যন্ত ন্যয় হয়েছে প্রায় ১৬৯ কোটি টাকা। আর বিগত অর্থবছরে এই উপখাতের ২১টি প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ ছিল প্রায় ৫০৩ কোটি টাকা এবং একই সময়ে ব্যয় হয়েছিল মোট প্রায় ২০০ কোটি টাকা।

মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মোঃ শাহ আলম এগ্রিকেয়ার২৪.কম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Please follow and like us:

About এগ্রিকেয়ার২৪.কম

Check Also

দেশে প্রথম বীমার আওতায় আসছে গবাদিপশু

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: দেশ প্রথমবারের মতো বীমার আওতায় আসছে গবাদিপশু। ফার্মটেক অ্যাপের মাধ্যমে গবাদিপশু শনাক্তকরণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Show Buttons
Hide Buttons
স্বত্ব © এগ্রিকেয়ার টোয়েন্টিফোর.কম (২০১৭-২০১৯)
সম্পাদক: কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান। নির্বাহী সম্পাদক: মো. আবু খালিদ।
যোগাযোগ: ২৩/৬ আইওনিক প্রাইম, রোড ২, বনানী, ঢাকা ১২১৩।
Email: agricarenews@gmail.com, Mobile Number: 01831438457, 01717622842