মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ২:৫৩
Home > অর্থ-বাণিজ্য > পোল্ট্রি ও ফিস ফিডের মোড়কে পণ্যের মান কমবে, বাড়বে খরচ-ফিআব
2097_ACS_1627_19-Poultry_Dairy-Ad

পোল্ট্রি ও ফিস ফিডের মোড়কে পণ্যের মান কমবে, বাড়বে খরচ-ফিআব

ডেস্ক প্রতিবেদন, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: পাটের বস্তায় পোল্ট্রি ও ফিস ফিড মোড়কীকরণে বাধ্যবাধকতা আরোপের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছে উৎপাদনকারিদের সংগঠন ফিড ইন্ডাষ্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ফিআব)।

প্রস্তুতকারকরা দাবি করে বলছেন, পৃথিবীর কোথাও এ ধরনের আইন নেই। কারণ পাটের বস্তায় ফিডের মান রক্ষা করা সম্ভব হয় না, স্বল্পতম সময়ে পচন ধরার কারণে তা মাছ ও মুরগির খাবার হিসেবে ব্যবহারের অনুপযোগি হয়ে পড়ে।

এ সিদ্ধান্তকে বাস্তবতার নিরিখে মূল্যায়ন করে আইন সংশোধনের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

ফিআব সভাপতি মসিউর রহমান এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এভাবে মোড়কীকরণ করলে সর্বোচ্চ ১০ দিন পর্যন্ত ফিড সংরক্ষণ করা সম্ভব। আমাদের দেশে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমান অনেক বেশি, বর্ষার সময় তা সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে।

তিনি বলেন, বাতাসের সংস্পর্শে এলে ফিডে ছত্রাকের সংক্রমণ ঘটে এবং  বিষাক্ত হয়ে পড়ে। এই বিষাক্ত ফিড কোনভাবেই মাছ কিংবা মুরগিকে খাওয়ানো সম্ভব নয়।

পোল্ট্রি ও ফিস ফিডের মান উন্নয়নের মাধ্যমে বেসরকারি উদ্যোক্তারা যখন রপ্তানীর কথা ভাবছেন তখন সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্ত এ শিল্পের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করবে বলে মনে করেন মসিউর রহমমান। তিনি বলেন, এ সিদ্ধান্তের কারণে পোল্ট্রি সেক্টরে ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে আসবে এবং ডিম ও মুরগির মাংসের যোগানে ব্যাপক ঘাটতি দেখা দেবে।  

ফিআব সাধারন সম্পাদক আহসানুজ্জামান বলেন, পরিবেশ সংরক্ষণে সরকারের ইতিবাচক সিদ্ধান্তকে আমরা সাধুবাদ জানাই। ফিড প্রস্তুতকারকগণ অনেক আগে থেকেই সরকারের এ নীতি অনুসরণ করে আসছেন।

তিনি আরও বলেন, ফিডের মোড়কে আমরা যে পিপি ওভেন ব্যাগ ব্যবহার করি তা পচনশীল। তিনি বলেন- ৫০ কেজি ধারণ ক্ষমতার একটি পিপি ওভেন বস্তার দাম পড়ে মাত্র ২০ টাকা। সেখানে একটি পাটের বস্তার দাম প্রায় ৭০-৮০ টাকা।

অর্থাৎ শুধুমাত্র পাটের বস্তার কারণেই প্রতি ব্যাগ ফিডের দাম ৬০ টাকা বেড়ে যাবে! অর্থাৎ প্রতি কেজি ফিডের উৎপাদন খরচ বাড়বে ১.৬০ টাকা। এতে সাধারন তৃণমূল খামারিরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। আর সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন ভোক্তা সাধারন।

কারণ পোল্ট্রি বা ফিস ফিডের উৎপাদন খরচ বেড়ে গেলে খুব স্বাভাবিক কারণেই এর প্রভাব গিয়ে পড়বে ডিম ও মুরগির মাংসের দামের ওপর- যা সাধারণ ক্রেতাদের বিড়ম্বনায় ফেলবে। 

গ্রামের সাধারন ও স্বল্প শিক্ষিত খামারিরা পিপি ওভেন ব্যাগেই ফিড ক্রয় ও সংরক্ষণে অভ্যস্ত। পিপি ওভেন ব্যাগের মত করে চটের ব্যাগে ফিড স্তুপ করে রাখলে তা ড্যাম্প হয়ে যাবে। এ ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা অনেক খামারির পক্ষেই সম্ভব হবে না। 

ফিড প্রস্তুতকারকগণ বলছেন, তাঁরা এ সম্পর্কে সংবাদপত্রের রিপোর্টের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন চলতি মাসের ১২ তারিখে, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ৬ আগস্ট। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ৬ আগস্ট থেকেই নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

তাঁরা বলছেন, পূর্বাপর না ভেবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে দেশীয় শিল্প পথে বসবে। যেখানে পাটের বস্তার ব্যবহার বাস্তবসম্মত নয় সেখানেও যদি জোর করে তা বাধ্যতামূলক করা হয় তবে তা হবে অত্যন্ত দু:খজনক।

শুধুমাত্র ফিড ইন্ডাষ্ট্রিতেই মাসে অন্তত: দেড় কোটি বস্তার প্রয়োজন। নির্ধারিত সময়ে এ পরিমান বস্তা সরবরাহ করা একেবারেই অসম্ভব। বস্তার অভাবে যদি ফিড সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায় তবে খামারগুলো বন্ধ হয়ে যাবে, প্রচুর মানুষ বেকার হয়ে যাবে, বাজারে ডিম ও মুরগির মাংসের ব্যাপক ঘাটতি দেখা দেবে।

কাজেই শিল্প টিকিয়ে রাখতে হলে এবং প্রাণিজ আমিষের চাহিদা পূরণ করতে হলে সরকারকে সিদ্ধান্ত পুণর্বিবেচনা করতে হবে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পোল্ট্রি শিল্পের ওপর একের পর এক নানাবিধ প্রতিবন্ধকতা ও চাপ বাড়ছে। ২০১৫-১৬ অর্থবছর থেকে কর অব্যাহতি সুবিধা তুলে নেয়া শুরু হয়। পরের বছরগুলোতে করের পরিধি ক্রমেই বাড়ানো হয়েছে।

চলতি মাসেই বিএসটিআই এর সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সে সিদ্ধান্তের জটিলতা এবং অর্থনৈতিক চাপ বিশ্লেষণ করে পরিস্থিতি বুঝে ওঠার আগেই নতুন আরেক সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কোন রকম আলোচনা ছাড়াই পাটের বস্তা বাধ্যতামূলক করা হলো।

ফিআব এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গত ১৩ আগস্ট বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, বরাবরে একটি পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।  সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে এ বিষয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছেন। তাঁরা আশা করছেন সরকার এ বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে পোল্ট্রি শিল্পের অগ্রযাত্রায় সহায়ক ভূমিকা পালন করবেন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এগ্রিকেয়ার২৪.কম কে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ড্রাস্ট্রিজ সেন্টার কাউন্সিল, মিডিয়া উপদেষ্টা মো. সাজ্জাদ হোসেন।

About এগ্রিকেয়ার২৪.কম

Check Also

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অপসোনিন ফার্মা’র

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অপসোনিন ফার্মা’র এগ্রোভেট ডিভিশনের বার্ষিক বিক্রয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ডেস্ক প্রতিবেদন, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: দেশের বৃহৎ ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অপসোনিন ফার্মা লিমিটেড এর এগ্রোভেট ডিভিশন, এর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বত্ব © এগ্রিকেয়ার টোয়েন্টিফোর.কম (২০১৭-২০১৯)
সম্পাদক: কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান। নির্বাহী সম্পাদক: মো. আবু খালিদ।
যোগাযোগ: চন্দ্রমণি ভিলা, ১৪৯/৪/ খ, দক্ষিণপীরের বাগ, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬।
Email: agricarenews@gmail.com, Mobile Number: 01717622842