সমাবর্তনে বর্ণিল সাজে পবিপ্রবির

পবিপ্রবি প্রতিনিধি, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: লাল, নীল, সবুজসহ নানান রঙের বর্ণিল সাজ দক্ষিণাঞ্চলের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে।

এমন রঙিন আলোয় আলোকিত হচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা। শিক্ষা জীবনের সর্বোচ্চ প্রাপ্তির দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ইতিমধ্যে কালো গাউন আর মাথায় হ্যাট পরে ছবি ধারণে মেতে উঠেছেন তারা।

সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০) বিশ্ববিদ্যালয়টির দ্বিতীয় সমাবর্তন উপলক্ষে এমন দৃশ্যের দেখা মিললো পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে। সরগরম আড্ডা ও আর স্মৃতি চারণে মধুর সময় পার করছেন তারা।

আগামীকাল বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে এ সমাবর্তন। এদিকে সমাবর্তনটি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সোমবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনে এ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুনর রশীদ। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মাদ আলী।

ভাইস-চ্যান্সেলর জানান, সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। বিশেষ অতিথি থাকবেন মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এ কে আজাদ চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখবেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুনর রশীদ।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন, একাডেমিক ভবন, আবাসিক হল ও গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলোকেও সাজানো হয়েছে। সর্বত্র সমাবর্তনের আমেজ বিরাজ করছে। সমাবর্তনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রায় চার হাজার আসনবিশিষ্ট প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে।

সমাবর্তন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সাংগঠনিক কমিটিসহ ১৫টি উপকমিটি কাজ করছে। বিশ্ববিদ্যালয় ও এর আশপাশে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এসএসএফ, র‌্যাব, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ ও জেলা পুলিশ কঠোর নজরদারি করছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় সমাবর্তন সফল করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। উৎসবমুখর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২য় সমাবর্তনকে নিয়ে বিবিএ অনুষদের সাবেক ছাত্র মোঃ রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও কৃষি অনুষদের সাবেক ছাত্রী রোমানা আফরোজ আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন, এই অপরুপ ক্যাম্পাসে রেখে যাওয়া সব স্মৃতি এক নিমিষেই যেন চোখের সামনে ভেসে আসছে।

ক্লাস, পরীক্ষা, এসাইনম্যান্ট, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা এ সব যেন এখন শুধুই মায়া। আর আজকে সবার গায়ে কালো গাউন, হ্যাট, ছবি তোলার এ উৎসব যেন আমাদের নতুন দিগন্তে আহ্বান করছে যোগ করেন সাবেক এই দুই শিক্ষার্থী।

সমাবর্তন বাস্তবায়ন কমিটি সূত্রে জানা গেছে, এবারের সমাবর্তনে প্রায় ৩ হাজার গ্র্যাজুয়েট অংশ নিচ্ছেন। যার মধ্যে স্নাতক এক হাজার নয় শত আটষট্টি জন, স্নাতকোত্তর নয় শত একান্ন জন ও পিএইচডি নয় জন অংশ গ্রহণ করবেন।

সমাবর্তনে মোট ৬৩ জনকে চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল প্রদান করা হবে। তার মধ্যে কৃষি অনুষদের ১০জন, এএনএসভিএম অনুষদের (ডক্টর অব ভেটেরিনারি মেডিসিন) থেকে ১১জন, এএনএসভিএম (এনিম্যাল হাজবেন্ড্রী) থেকে ৪ জন, বিএএম অনুষদের ১০জন, সিএসই অনুষদের ১০জন, ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট থেকে ৬জন, এনএফএস থেকে ৪ জন ও ফিসারিজ ফ্যাকাল্টি থেকে ৮ জনকে গোল্ড মেডেল প্রদান করা হবে।

সমাবর্তন শেষে সন্ধ্যায় উন্মুক্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করবেন ২০০৮ সালের ক্লোজআপ ওয়ান তারকা ‘সানিয়া সুলতানা লিজা’ ও ব্যান্ড দল ‘জলের গান’।