আন্তর্জাতিক কৃষি ডেস্ক, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: ফ্রান্সে ৫০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ খরা হয়েছে। এ কারণে দেশটিতে শস্যটির উৎপাদনে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। ফ্রান্সের কৃষি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে চলতি বছর ফ্রান্সে পশুখাদ্য হিসেবে ব্যবহূত ভুট্টা উৎপাদন গত বছরের তুলনায় ২৫ শতাংশ কমতে পারে।

দেশটির কৃষি বিভাগের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়াবে ১ কোটি ১৬ লাখ টনে। ১৯৯০ সালের পর উৎপাদনে এমন নিম্নমুখিতা আর দেখা যায়নি। গত বছর থেকেই বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রায় সব ধরনের শস্য উৎপাদন কমেছে। শুধু তেলবীজ উৎপাদনে প্রতিকূল আবহাওয়ার প্রভাব লক্ষ করা যায়নি। কৃষি মন্ত্রণালয় বলছে, এমন কোনো অঞ্চল বাকি নেই যেখানে উৎপাদন ব্যাহত হয়নি।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্সে সবচেয়ে বেশি কৃষিপণ্য উৎপাদন হয়। রফতানিতেও দেশটি শীর্ষস্থানীয়। দেশটিতে উৎপাদন কমে যাওয়ায় নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে বিশ্ববাজারে। এমনকি খাদ্যপণ্যের দাম আবারো বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা। এদিকে ইউরোপের অন্য দুটি শীর্ষ কৃষিপণ্য উৎপাদক দেশ জার্মানি ও রোমানিয়ায়ও খরার কারণে উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

পড়তে পারেন: সাড়ে ৬৬ হাজার টন গম-ভুট্টা রপ্তানি করবে ইউক্রেন

ফ্রান্সভিত্তিক স্ট্র্যাটেজি গ্রেইনস এক প্রতিবেদনে জানায়, চলতি বছর ইউরোপে গম উৎপাদনও কমে যেতে পারে। সংস্থাটির প্রাক্কলন অনুযায়ী, ২০২২-২৩ বিপণন মৌসুমে এ অঞ্চলে গম উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়াবে ১২ কোটি ৪১ লাখ টনে। ২০২১-২২ মৌসুমে যা ছিল ১২ কোটি ৯৮ লাখ টন।

এদিকে দেশে ভুট্টা আমদানির পরিমাণ বেড়েছে। সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে গত দুই মাসে ৩১ কোটি ৬৯ লাখ টাকার ভুট্টা আমদানি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভোমরা শুল্কস্টেশন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের বাজারে চাহিদা থাকায় আমদানি বেড়েছে কৃষিপণ্যটির। আমদানি করা এ ভুট্টা বিভিন্ন অঞ্চলে মাছ, পোলট্রি ও গোখাদ্য হিসেবে ব্যবহার হয়। কৃষিজাত পণ্যটি আমদানি বাড়লেও তাতে সরকারের কোনো রাজস্ব আসে না বলে জানিয়েছেন ভোমরা শুল্কস্টেশন কাস্টমসের ডেপুটি কমিশনার নেয়ামুল হাসান। তবে সম্প্রতি ভুট্টার আমদানি বেড়েছে বলেও জানান তিনি।

ভোমরা শুল্কস্টেশনের রাজস্ব শাখার তথ্য অনুযায়ী, গত অর্থবছরের প্রথম দুই মাসের তুলনায় চলতি অর্থবছরে প্রায় ৩০ শতাংশ বেশি আমদানি হয়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে এ বন্দর দিয়ে ভুট্টা আমদানি করা হয়েছে ৯ হাজার ৯১২ টন। এর মধ্যে গত জুলাইয়ে ৭ হাজার ৫৪৪ টন এবং আগস্টে ২ হাজার ৩৬৮ টন। যার মূল্য ৩১ কোটি ৬৯ লাখ টাকা।

পড়তে পারেন: ইউক্রেনে ভুট্টার উৎপাদন কমছে

এর আগে গত অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে এ বন্দর দিয়ে ৭ হাজার ১৬ টন ভুট্টা আমদানি হয়েছিল। যার মোট মূল্য ছিল ১৯ কোটি ৫১ লাখ টাকা। অর্থাৎ চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে পণ্যটির আমদানি বেড়েছে ২ হাজার ৮৯৬ টন, যা গত বছরের তুলনায় প্রায় ৩০ শতাংশ বেশি।

এগ্রিকেয়ার/এমএইচ