শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ১১:০২
Home > প্রাণী > মৎস্য, প্রাণিসম্পদের খামারের অব্যবস্থাপনা চিহ্নিত এবং মন্ত্রণালয়-দফতরসমূহে দীর্ঘদিন কর্মরতদের রদবদলের নির্দেশ
2097_ACS_1627_19-Poultry_Dairy-Ad
মৎস্য, প্রাণিসম্পদের খামারের অব্যবস্থাপনা

মৎস্য, প্রাণিসম্পদের খামারের অব্যবস্থাপনা চিহ্নিত এবং মন্ত্রণালয়-দফতরসমূহে দীর্ঘদিন কর্মরতদের রদবদলের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: মৎস্য, প্রাণিসম্পদের খামারের অব্যবস্থাপনা চিহ্নিত এবং মন্ত্রণালয়-দফতরসমূহে দীর্ঘদিন কর্মরতদের রদবদলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মূলত মন্ত্রণালয় এবং অধীনস্থ দফতর-সংস্থার গতিত্বরান্বিত করতে একই কর্মস্থলে দীর্ঘদিন কর্মরত কর্মকর্তাদের আন্তঃডেস্ক রদবদলসহ বদলির নির্দেশ দেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু।



একই সাথে তিনি মাঠপর্যায়ের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদভিত্তিক খামারসমূহের অব্যবস্থাপনা ও দুর্বলতাসমূহ চিহ্নিত করতে এবং নিয়মিত পরিদর্শন করতে সংশ্লিষ্ট ডিজিদের নির্দেশ দেন।

আজ মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট, ২০১৯) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত মৎস্য ও প্রাণিখাতের পৃথক-পৃথক বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) এর মাসিক পর্যালোচনাসভায় প্রতিমন্ত্রী এসব নির্দেশের কথা তুলে ধরেন।

প্রতিমন্ত্রী সিলেটের কিছু খামারে আকস্মিক সফরের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিশাল-বিশাল সরকারি পশু-প্রাণীর খামারগুলোর অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ, অব্যবস্থাপনা ও দুরবস্থা গ্রহণযোগ্য নয়।

তিনি অনতিবিলম্বে সারাদেশের খামার সংখ্যা এবং খামার সমূহের সম্পত্তির পরিমানসহ হালনাগাদ তথ্য-উপাত্ত পেশ করতেও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

তিনি খামারসমূহের অব্যবহৃত জমির যথাযোগ্য ব্যবহারের ওপর জোর দিয়ে বলেন, সরকারি মাল দরিয়া মে ঢাল-অবস্থা আর চলতে দেয়া যাবে না। তিনি নতুন-নতুন প্রকল্পের বদলে খামারভিত্তিক আধুনিকায়ন প্রকল্পের পাশাপাশি উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধিমূলক প্রকল্প গ্রহণেরও আহবান জানান।

উল্লেখ্য, ২০১৯-২০ অর্থবছরে মন্ত্রণালয়ের ৩৬টি প্রকল্পের জন্য ১৬১৬ কোটি ৫০ লাখটাকার বাজেট বরাদ্দ হয়েছে, যা গত অর্থবছরের দ্বিগুণেরও অধিক।

বিগত অর্থবছরে ৩৫টি প্রকল্পের জন্য এ বাজেটের পরিমান ছিল ৭৯২ কোটি ৫২ লাখটাকা। চলতি অর্থবছরের শুরু জুলাই মাসে ৩৬ প্রকল্পে ব্যয় হয়েছে ৭ কোটি ৫৫ লাখটাকা এবং বিগত অর্থবছরে এ ব্যয়ের পরিমান ছিল ২ কোটি ৩২ লাখটাকা।

আবার চলতি অর্থবছরে মৎস্য উপখাতে ১৭টি প্রকল্পে ৬২২ কোটি ৯৩ লাখটাকা বরাদ্দ হলেও জুলাইয়ে ব্যয় হয়েছে এককোটি ২৯ লাখটাকা। বিগত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১৯টি প্রকল্পের জন্য বরাদ্দকৃত ৪৪০ কোটি ৭২ লাখ টাকার মধ্যে একই মাসে ব্যয় হয়েছিল ৭৪ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।

অন্যদিকে, চলতি অর্থবছরে প্রাণিসম্পদ উপখাতের ২০টি প্রকল্পে জন্য বরাদ্দ হয়েছে ৯৯৩ কোটি ৫৭ লাখটাকা এবং জুলাইয়ে ব্যয় হয়েছে ৬ কোটি ২৬ লাখটাকা।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১৬টি প্রকল্পে বরাদ্দকৃত ৩৫১ কোটি ৮০ নলাখটাকার মধ্যে একই মাসে ব্যয় হয়েছিল ১ কোটি ৫৭ লাখটাকা।

প্রতিমন্ত্রীর সভাপতিত্বে এডিপি-সভায় মন্ত্রণালয়ের সচিব রইছউল আলম মণ্ডল, বিএফডিসির চেয়ারম্যান দিলদার আহমদ, মৎস্য অধিদফতরের ডিজি আবু সাইদ মোঃ রাশেদুল হক, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের ডিজি হীরেশ রঞ্জন ভৌমিক, মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের ডিজি ড ইয়াহিয়া মাহমুদ, প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের ডিজি নাথুরাম সরকারসহ প্রকল্প পরিচালকগণ অংশ নেন।

About এগ্রিকেয়ার২৪.কম

Check Also

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মা ইলিশ সংরক্ষণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে কারেন্ট জাল জব্দ ও বিনষ্ট

মৎস্য ডেস্ক, এগ্রিকেয়ার২৪.কম: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে কারেন্ট জাল জব্দ ও বিনষ্ট করা হয়েছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্বত্ব © এগ্রিকেয়ার টোয়েন্টিফোর.কম (২০১৭-২০১৯)
সম্পাদক: কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান। নির্বাহী সম্পাদক: মো. আবু খালিদ।
যোগাযোগ: ২৩/৬ আইওনিক প্রাইম, রোড ২, বনানী, ঢাকা ১২১৩।
Email: agricarenews@gmail.com, Mobile Number: 01831438457, 01717622842